ঢাকা, রবিবার, জুলাই ২১, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
HTML tutorial

নেককার মহিলাদের ফযীলত

মাওলানা মোঃ ইমাম হোসেন

প্রকাশিত: ২০ জুলাই, ২০২৪, ০৬:২৮ পিএম

নেককার মহিলাদের ফযীলত

★হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আমর (রাযি.)রাসুলুল্লাহ (সা.) এর পবিত্র বাণী বর্ণনা করেন য,এ বিশ্ব ভূ- মন্ডলে পুরাটাই ভোগ সম্ভার ও আনন্দ উল্লাসের সামগ্রী। তন্মধ্যে সর্বোত্তম সামগ্রী হল নেক ও সৎ কর্মপরায়ণ নারী।

★একজন নেক ও সৎ কর্মপরায়ণ মহিলা এক হাজার বে- আমল পুরুষ হইতে উত্তম। অর্থাৎ রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেন নিশ্চয়ই পৃথিবীর নেকবখত নারীগণ জান্নাতের মধ্যে সত্তর হাজার আনত নয়না রুপসী হুরদের চেয়েও উত্তম।

★হযরত ইবনে আব্বাস (রাযি.) বর্ণনা করেন, নবী কারীম (সা.) এরশাদ করেন,যদি কোন মহিলাকে তার দ্বীনদারী ও সৌন্দর্যের ভিত্তিতে বিবাহ করে, তাহলে সেই নিজের অধঃপতনের (অমঙ্গল) পথকে রক্ষা পাওয়ার প্রাচীর নির্মাণ করল।

★ হযরত আবু উমামা (রাযি.) রাসুলুল্লাহ (সা.) এর বাণী বর্ণনা করেন যে,মুমিন বান্দা খোদাভীরুতা অর্জনের পর নিজের জন্য সবচেয়ে উত্তম বস্তু, যা সে নির্বাচন করে,তাহা হল নেকবখত স্ত্রী। যার গুণ এমন যে,স্বামী যখন কোন কাজের আদেশ দেয়,তখন তা পূর্ণ করে।যখন স্বামী তার পানে থাকে,তাকে সন্তুষ্ট করে দেয়। আর যদি তার ব্যাপারে কোন শপথ করে, তা পূর্ণ করতে স্বামীকে সহযোগিতা করে,আর স্বামীর অনুপস্থিতিতে নিজেকে ও স্বামীর ধন -সম্পদের হিফাজত করে।

alo