ঢাকা, শুক্রবার, ফেব্রুয়ারী ২৩, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
HTML tutorial

রমজানুল মোবারকের রোজা (প্রথম পর্ব)

মুফতি আহমাদ আলী

প্রকাশিত: ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪, ০২:১০ এএম

রমজানুল মোবারকের রোজা (প্রথম পর্ব)

রোজা রাখা ফরজ এমন ব্যক্তির দিনের বেলা ইচ্ছায় অথবা অনিচ্ছায় পেটে অথবা পেটের হুকুম রাখে যেমন মস্তিষ্ক এমন কিছুতে কোন কিছু প্রবেশ করানো হতে ও যৌন কামনা হতে বিরত থাকার নামই রোজা।

রোজা ওয়াজিব হওয়ার কারণ হলো রমজান মাসের অংশ বিশেষ উপস্থিত হওয়া। রমজানের প্রত্যেকটি দিন সেদিনের রোজা আদায় ফরজ হওয়ার কারণ। যথা সময়ে কিংবা কাজা হিসেবে রোজা পালন করা ওই ব্যক্তির উপর ফরজ যার মধ্যে চারটি শর্ত পাওয়া যায়। শর্তগুলো হলো-ইসলাম, স্থির মস্তিষ্ক, প্রাপ্ত বয়স ও যে ব্যক্তি দারুল হরবে ইসলাম গ্রহণ করেছে অথবা দারুল হরবে থাকে তার জন্য রোজা ফরজ হওয়ার জ্ঞান লাভ করা।

রোজা পালন করা ওয়াজিব হওয়ার জন্য শর্ত হলো রোগ ও হায়েজ- নেফাস থেকে মুক্ত থাকা এবং মুকিম হওয়া।

রোজা সঠিক হওয়ার শর্ত তিনটি-১.নিয়ত করা, প্রতিটি রোজার জন্য আলাদা আলাদা নিয়ত করা জরুরি, কেননা প্রতিটি রোজা ওয়াজিব হওয়ার জন্য রমজানের এক একটি দিন ভিন্ন ভিন্নভাবে একটি কারণ হিসেবে পরিগণিত হয়। এক একটি দিন পরিবর্তন হওয়ার সাথে কারণ ও পরিবর্তন হতে থাকে তাই প্রত্যেকদিন নতুন নিয়ত এর আবশ্যকতা রয়েছে।২. রোজার অন্তরায় হায়েজ নিফাস হতে মুক্ত থাকা।৩. রোজা বিনষ্ট করে এমন বস্তু হতে মুক্ত থাকা। জানাবাত তথা নাপাক হতে মুক্ত হওয়া শর্ত নয়।

রোজার মূল স্তম্ভ হলো- পেট ও যৌন এবং এ দুটোর সংশ্লিষ্ট কামনা পূরণ করা হতে বিরত থাকা। রোজার হুকুম হলো ফরজের জিম্মা হতে অব্যাহতি লাভ করা ও পরকালীন পূর্ণ হাসিল করা।                লেখা চলবে -

 

 

alo